বরিশালে ডিজিটাল স্বাক্ষরের প্রচারণামুলক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৭ ডিসেম্বর) সকাল ১০ টায় ইলেক্ট্রনিক স্বাক্ষর সার্টিফিকেট প্রদানকারী কর্তৃপক্ষের আয়োজনে সার্কিট হাউজ সম্মেলন কক্ষে এ সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বিভাগীয় কমিশনার মোঃ শওকত আলী। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক শহিদুল ইসলাম।

বিশেষ অতিথি ছিলেন স্থানীয় সরকার পরিচালক খোন্দকার আনোয়ার, জাতীয় সাইবার নিরাপত্তা এজেন্সির মহাপরিচালক আবু সাঈদ মোঃ কামরুজ্জামান এনডিসি, সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী (বরিশাল অঞ্চল) এ. কে. এম. আজাদ রহমান, বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা অধিদপ্তর আঞ্চলিক কার্যালয়ের পরিচালক মোঃ ইসরাইল হোসাইন ও আইন উপ-নিয়ন্ত্রক সাইবার অপরাধ ও নিরাপত্তা সিসিএ কার্যালয়ের সহকারী নিয়ন্ত্রক লুৎফুন নাহার।

 

 

এছাড়া সেমিনারে বিভিন্ন সরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা বৃন্দরা উপস্থিত ছিলেন। সেমিনারের শুরুতে পাওয়ার পয়েন্ট প্রেজেন্টেশন উপস্থাপন করা হয়। পরে অতিথিরা ডিজিটাল স্বাক্ষরের বিভিন্ন বিষয় তুলে ধরে আলোচনা করেন। তারা বলেন, সরকারি অফিসে ইলেক্ট্রনিক রেকর্ড ও ইলেক্ট্রনিক স্বাক্ষর ব্যবহারের আইনানুগ স্বীকৃতি প্রদান করা হয়েছে।

সে মোতাবেক ২০১১ সালে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের একটি সংযুক্ত অফিস হিসেবে ইলেক্ট্রনিক স্বাক্ষর সার্টিফিকেট প্রদানকারী কর্তৃপক্ষের নিয়ন্ত্রক-এর কার্যালয় প্রতিষ্ঠিত হয়। এর ধারাবাহিকতায় ২০১২ সালের ১৮ এপ্রিল রুট কী জেনারেশন সিরিমনির মাধ্যমে সিসিএ কার্যালয়ের তত্ত্বাবধানে বাংলাদেশে পৃথিবীর অন্যান্য দেশের ন্যায় ডিজিটাল স্বাক্ষরের ব্যবহার কার্যক্রম শুরু হয়েছে।

ডিজিটাল স্বাক্ষর ব্যবহারের মাধ্যমে ই-সেবা বা ই-কার্যক্রমের তথ্য বা ডকুমেন্টের নিরাপত্তা, নির্ভরযোগ্যতা ও বিশ্বাসযোগ্যতা নিশ্চিত করা সম্ভব হয়; অন্যথায় সাইবার নিরাপত্তার অভাবে ডিজিটাল কার্যক্রম বা ট্রানজেকশনসমূহ হুমকির মধ্যে পড়ে। বর্তমানে তাই ডিজিটাল স্বাক্ষর ব্যবহার অপরিহার্য হয়ে পড়েছে। কারণ ডিজিটাল স্বাক্ষর একটি ক্রিপ্টোগ্রাফিক কৌশল যা ডিজিটাল তথ্যের নিম্নলিখিত বিষয়গুলো নিশ্চিত করে। আজকের সেমিনারে অংশগ্রহণকারীরা ডিজিটাল স্বাক্ষর ও ই-সাইন কি, এর ব্যবহার, ডিজিটাল স্বাক্ষর ও ই-সাইন ব্যবহার বৃদ্ধিতে করণীয়, পিকেআই সিস্টেম, সংশ্লিষ্ট আইনের ধারা ও বিধিসমূহসহ হাতে-কলমে ডিজিটাল স্বাক্ষরের বিভিন্ন প্রায়োগিক দিক সম্পর্কে জানতে পারবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here