অর্থনৈতিক সঙ্কটের কারণে শ্রীলঙ্কার শিশুরা ‘ক্ষুধার্ত অবস্থায় বিছানায়’ যাচ্ছে। শুক্রবার জাতিসংঘ সতর্ক করে দিয়ে বলেছে দক্ষিণ এশিয়ার অন্যান্য দেশগুলোও একই ধরনের সঙ্কটে পড়তে পারে।

চলতি বছর শ্রীলঙ্কার বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ শেষ হয়ে যায়। এতে দেশটি খাদ্য, জ্বালানি ও অন্যান্য প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র আমদানি করতে পারছে না। এর ফলে দেশটিতে স্বাধীনতার পর সবচেয়ে ভয়াবহ অর্থনৈতিক মন্দা দেখা দিয়েছে।

জাতিসংঘের শিশু বিষয়ক সংস্থা ইউনিসেফের দক্ষিণ এশিয়ার পরিচালক জর্জ লারিয়া-আদজেই বলেছেন, ‘রান্নাঘরের প্রধান জিনিসগুলো কেনা অসাধ্য হওয়ায় পরিবারগুলোকে নিয়মিত খাবার বাদ দিতে হচ্ছে যা তাদেরকে সঙ্কট আরও বাড়িয়ে তুলছে।’

তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ‘শিশুরা ক্ষুধার্ত অবস্থায় ঘুমাতে যাচ্ছে, তাদের পরবর্তী খাবার কোথা থেকে আসবে তা নিশ্চিত নয়।’

এপ্রিল মাসে শ্রীলঙ্কা পাঁচ হাজার ১০০ কোটি ডলারের ঋণ খেলাপি হয়েছে। বর্তমানে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের সাথে দেশটির বেলআউট আলোচনা চলছে।

জর্জ লারিয়া বলেন, ‘দক্ষিণ এশিয়া জুড়ে তীব্র অর্থনৈতিক অনিশ্চয়তা এবং মুদ্রাস্ফীতি শিশুদের জীবনকে আরও হুমকির মুখে ফেলতে পারে। আমি শ্রীলঙ্কায় যা দেখেছি তা দক্ষিণ এশিয়ার অন্য দেশগুলোর জন্য সতর্কবার্তা।’

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here