অনেক বছর আগের কথা। কৃতী শ্যানন তখন বলিউডের প্রথম সারির নায়িকা নন, ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের ছাত্রী। ভালো উচ্চতার সুবাদে মডেলিংয়ের প্রস্তাব পেয়েছিলেন তিনি। সময় কাটানোর জন্য সাত-পাঁচ না ভেবেই রাজিও হয়ে যান কৃতী। কিন্তু এই সিদ্ধান্তের জন্যই নাস্তানাবুদ হতে হয়েছিল বলিউডের ‘মিমি’কে।

একদিন র‍্যাম্প ওয়াকের মহড়ার সময় ভুল করে ফেলেন কৃতী। কোরিওগ্রাফার যা শিখিয়েছিলেন, তা না করায় তিরস্কৃত হতে হয় তাকে। এক সাক্ষাৎকারে কৃতী বলেছিলেন, ‘কোরিওগ্রাফার প্রায় ২০ জন মডেলের সামনে আমাকে বকেছিলেন। আর আমাকে কেউ বকলেই আমি কাঁদতে শুরু করে দিই।’

আনন্দবাজার পত্রিকা জানায়, বহু বছর আগের সেই দিনের কথা এখনো স্পষ্ট কৃতীর মনে। তিনি বলেন, ‘আমি ফেরার সময় অটোতে বসেই কাঁদতে শুরু করে দিয়েছিলাম। আমি বাড়ি গিয়েও মায়ের কাছে কেঁদেছিলাম।’ মেয়েকে ভেঙে পড়তে দেখে তার মা তাকে মানসিকভাবে দৃঢ় এবং আত্মবিশ্বাসী হওয়ার উপদেশ দিয়েছিলেন।

সময়ের সঙ্গেই মায়ের উপদেশ মেনে আত্মবিশ্বাসী হয়ে ওঠেন কৃতী। এরপর আর পিছন ফিরে তাকাতে হয়নি তাকে। মডেলিংয়ের র‍্যাম্প থেকে সোজা বড় পর্দায় উত্তরণ হয় তার।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here