প্রতিষ্ঠার ১০০ বছর পর বরিশাল জেনারেল হাসপাতাল আড়াইশ শয্যা হাসপাতালে পরিনত হচ্ছে। এই লক্ষ্য বাস্তবায়নে ইতিমধ্যে ২৩ কোটি টাকা ব্যয়ে বহুতল ভবন নির্মিত হতে যাচ্ছে।

ভবন নির্মাণের দরপত্র আহবান করেছে গণপূর্ত বিভাগ। আগামী ১৬ সেপ্টেম্বর এই উন্মুক্ত দরপত্র খুলবে বরিশাল গণপূর্ত বিভাগ।

১৯১২ সালে ২০ শয্যার বরিশাল জেনারেল হাসপাতালের যাত্রা শুরু হয়। গত নব্বই দশকে ৮০ শয্যায় উন্নীত করা হয় জেনারেল হাসপাতাল।

সব শেষ ২০ শয্যার ডায়রিয়া ওয়ার্ড নিয়ে ১শ শয্যায় উন্নীত হয় বরিশাল জেনারেল হাসপাতালকে। কিন্তু দিন দিন রোগীর চাপ বেড়ে যাওয়ায় জেনালের হাসপাতালের পরিসর বাড়ানোর দাবি ওঠে সর্বমহলে।

সিভিল সার্জন ডা. মো. মনোয়ার হোসেন জানান, ১শ শয্যার জেনারেল হাসপাতাল আড়াইশ শয্যায় উন্নীত করতে মন্ত্রনালয়সহ সংশ্লিষ্ট বিভাগে দির্ঘদিন ধরে চিঠি চালাচালি হয়।

২০১৮ সালে অপারেশন প্লান পাঠানোর প্রেক্ষিতে মন্ত্রনালয় জেনালের হাসপাতালকে আড়াইশ শয্যায় উন্নীত করে।

এই লক্ষ্যে সেখানে ১২ তলা ভবন নির্মিত হবে। প্রথম পর্যায়ে ২৩ কোটি টাকা বরাদ্দ দিয়েছে মন্ত্রনালয়। আড়াইশ শয্যা হাসপাতালের জন্য অবকাঠামো নির্মাণের পাশাপাশি ধাপে ধাপে চিকিৎসক, নার্স এবং তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারী নিয়োগ করা হবে।

বরিশাল গণপূর্ত বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী জেরাল্ড অলিভার গুডা বলেন, জেনারেল হাসপাতালে ১২ তলা ভবন অনুমোদন হয়েছে। প্রথম পর্যায়ে হবে দুই তলা ভবন।

এ জন্য ২৩ কোটি টাকা বরাদ্দ হয়েছে। ইতিমধ্যে দরপত্র আহবান করা হয়েছে। ১৬ সেপ্টেম্বর দরপত্র খুলে ঠিকাদারকে কার্যাদেশ দেয়া হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here